বিপুল রায়-নাগেশ্বরী কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার মনিয়ার হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঘটা নানা অনিয়মের অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয় ক্ষুদ্র মেরামতের জন্য বরাদ্দকৃত (স্লিপের)টাকা কাজ না করেই উত্তোলন পূর্বক আত্মসাতের করেছে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এ ব্যাপারে গত ২৬ সেপ্টেম্বর নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নাগেশ্বরী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ করেছে ওই বিদ্যালয়ের সাবেক দাতা সদস্য নজরুল ইসলাম ।
জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে নিয়মিত কমিটি না করে নিজের স্বার্থ হাছিলের জন্য অনিয়মিত কমিটির মাধ্যমো বিদ্যালয় পরিচালনা করে আসছে।
এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খাদিজা সুলতানা কেয়া নিয়মিত বিদ্যালয় উপস্থিত না হলেও বিল বেতন ঠিকই তুলে নিচ্ছে।

বিদ্যালয়ের বর্তমানে কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম বাবুর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি কমিটির সদস্য হওয়ার পরেও জানিনা কিভাবে টাকা উত্তোলন করা হয়েছে।আবু হাসান বাবু অভিযোগ করে বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার রাশিদুল ইসলাম মন্ডলকে মৌখিক ভাবে অনেক বার অভিযোগ করলেও কোন কাজ হয়নি। শুধু তাই নয়, ঘটনার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ নাগেশ্বরী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দিতে গেলে আবু হাসান বাবুকে ভয়ভীতি দেখিয়ে অভিযোগ গ্রহণ না করে প্রথমে ফেরত পাঠিয়ে দেয়। পরে অভিযোগ কারীর অভিযোগ জমা নিয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার লুতফর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, এব্যাপারে আমি জানিনা, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনি যে খবরগুলো মিস করেছেন