নাহিদুল ইসলাম, রাজবাড়ী ঃ

২১ শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা সমুন্নত রাখার জন্য ভাষা শহীদদের সর্বোচ্চ আত্মত্যাগকে স্মরণ করে বাঙালি জাতি আগামী বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি তারিখে “অমর শহীদ দিবস” শিরোনামে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস পালন করবে।

১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ইউনেস্কো ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় প্রতি বছর বিশ্বজুড়ে এ দিবসটি পালন করা হয়।

ভাষা আন্দোলনের সেই বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারে খালি পায়ে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গাইতে গাইতে হাতে ফুল নিয়ে সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানাবে।

রাজবাড়ীতে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে রাজবাড়ী’র শহীদ খুশি রেলওয়ে ময়দানে জেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিতব্য কর্মসূচির প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। চলছে শেষ পর্যায়ের রং তুলির কাজ।

এছাড়াও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে থাকছে : পুষ্পস্তবক অর্পণ, প্রভাতফেরি, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বিশেষ প্রার্থনা, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।

রাত ১২ টা ১ মিনিটে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সূর্যদ্বয়ের সাথে সাথে সকল প্রতিষ্ঠানে অর্ধনমিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন, ভাষা শহীদদের উদ্দেশ্যে বিশেষ প্রার্থনা, সকাল ১০ টায় ডা: আবুল হোসেন কুইজ প্রতিযোগিতা, দুপুর ২ টা ৪৫ মিনিটে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, বিকাল ৩ টায় ভাষা আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিকাল ৫ টায় পুরষ্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ কর্মসূচি সম্পন্ন করা হবে।

আপনি যে খবরগুলো মিস করেছেন