রাজবাড়ী ঃ

রাজবাড়ী জেলা দায়রাজজ আদালতে হত্যা মামলায় শিপন শেখ (২৫) ও বক্কর শেখ (২৮) নামে ২জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ২২ জুন দুপুরে রাজবাড়ী জেলা ও দায়রা জজ মোছাঃ জাকিয়া পারভীন এ রায় প্রদান করেন। শিপন রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের অভনগর গ্রামের মোঃ আক্কাস শেখের ছেলে এবং বক্কর শেখ ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার সতৈর গ্রামের মৃত আকমল শেখের ছেলে।
মামলা ও আদালত সুত্রে জানাগেছে, ২০১৮ সালের ২৮ আগস্ট সকাল ৭টার সময় বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের চরপোটরা গ্রামের গড়াই নদীর বেড়িবাঁধের পূর্ব পাশের মনোরঞ্জন মন্ডলের ধানি জমির পাশের বিলের ডোবার একপাশে পানির মধ্যে উপুর অবস্থায় কলমী লতা ও পাটকাঠি দিয়ে ঢাকা অজ্ঞাতনামা পুরুষ (২৩) মৃতদেহ পুলিশ উদ্ধার করে। ঝোপের পাশে শুকনা স্থানে একজোড়া চামড়ার চটি উদ্ধার করে। পরে বালিয়াকান্দি থানার এসআই নুর মোহাম্মদ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত সম্পন্ন করাসহ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। সাজাপ্রাপ্ত ২জনকে গ্রেপ্তার করে। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেন। ওই মামলায় স্বাক্ষ্য প্রমান সাপেক্ষে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের অভনগর গ্রামের মোঃ আক্কাস শেখের ছেলে শিপন শেখ এবং শেখ ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার সতৈর গ্রামের মৃত আকমল শেখের ছেলে বক্কর শেখকে দি প্যানাল কোর্ড ১৮৬০ এর ৩০২/২০১/৩৪ ধারার এবং ৩০২/৩৪ ধারার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় প্রত্যেককে যাবজ্জীন কারাদন্ড, ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ২০১ ধারার অপরাধের জন্য প্রত্যেককে ৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ড এবং ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন।

আসামী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. রফিকুল ইসলাম বলেন, এ মামলাটিতে আসামীরা খালাস পাওয়ার যোগ্য। উচ্চ আদালতে আমরা আপীল করবো।

আপনি যে খবরগুলো মিস করেছেন