সাব্বির হোসাইন, কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লা জেলায় বিভিন্ন পর্যটন এলাকার মধ্যে দর্শনার্থীদের প্রিয় একটি স্থান কুমিল্লা ধর্মসাগর পার্ক। টিকেট না থাকায় অন্যান্য পর্যটন এলাকা থেকে ধর্মসাগর পার্কে দর্শনার্থীর সংখ্যা বেশি থাকে। সিটি কর্পোরেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, সর্বসাধারণের জন্য সকাল ৫ টা থেকে সন্ধ্যা ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে এই পর্যটন স্থানটি। স্কুল, কলেজ চলাকালীন সময়ে পার্কের ভিতরে শিক্ষার্থীদের প্রবেশ নিষেধ করেছেন জেলা প্রশাসক। কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের এই আদেশ থাকার পরও দেখা গেছে প্রায় ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থী প্রতিনিয়ত পার্কের ভিতরে। সাধারণত ধর্মসাগর পাড়ের কাছাকাছি বিভিন্ন স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থী সহ বাহিরের শিক্ষার্থীও দেখা যায় পার্কে। স্কুল কলেজ চলাকালীন সময়ে শিক্ষার্থী কেন পার্কে? এই বিষয় জানার জন্য বিভিন্ন রাইড মালিকদের প্রশ্ন করলে অনেকেই জানান, এই বিষয়ে আমাদের কাছে কোন নোটিশ এখনো আসেনি আবার অনেকে বলেন, আমাদের কাছে তেমন দায়িত্ব নেই, তবে আমাদেরকে এই বিষয়ে সিটি কর্পোরেশন, জেলা প্রশাসক এবং স্কুল, কলেজের শিক্ষকদের জানানোর জন্য বলা হয়েছে। পার্কের ভিতরে থাকা একজন শিক্ষার্থীর কাছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, স্কুল কলেজে তেমন ক্লাস হয়না তাই বন্ধু-বান্ধবদের সাথে দেখা ও আড্ডা দিতে পার্কে আসছি। পার্কে ঘুরতে আসা একজন দর্শনার্থী বলেন, বর্তমান শিক্ষার্থী পড়াশোনায় অমনোযোগী স্কুল, কলেজ ফাঁকি দিয়ে পার্কে এসে ছেলে-মেয়েরা এক সাথে আড্ডা দেয়। অবিভাবক ও শিক্ষকদের সঠিক তদারকি না থাকার কারণে এমনটা হচ্ছে। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শিউলি রহমান তিন্নি বলেন, আমরা বিভিন্ন সময়ে জেলার বিভিন্ন পার্কে অভিযান পরিচালনা করি। এই বিষয়ে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য স্কুল, কলেজের শিক্ষক সহ পার্কের দায়িত্বে থাকা সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে বলা হয়েছে।